হোয়াটসঅ্যাপ মার্কেটিং সফটওয়্যারটি ব্যবহার করে কি কি করা যাবে?

আপনি একজন ব্যবসায়ী???

আপনি যেই পণ্য বা সার্ভিসের ব্যবসা-ই করেন না কেনো, প্রতিবার নতুন ক্রেতার পেছনে ছুটতে থাকলে ব্যবসাকে বড় করতে পারবেন না। আপনাকে পুরাতন ও রেগুলার ক্রেতাদের দিকেও নজর দিতে হবে।

একজন নতুন ক্রেতার কাছে পণ্য বা সেবার বিজ্ঞাপন পৌঁছে দিতে অনেক টাকা খরচ করতে হয়। এমন অবস্থায় একবার ক্রয় করেছে এমন ক্রেতার কাছে যদি আবারো টাকা খরচ করে পৌঁছাতে হয় তাহলে আপনার ব্যবসায়ের ব্যয় বাড়বে এবং লাভ কমবে। তাই যেকোনো ক্রেতা একবার ক্রয় করলে তাকে রেগুলার করে নিতে হবে। WhatsGrow ব্যবহার করে আপনি সকল ক্রেতাকে রেগুলার করে নিতে পারবেন বিনা খরচে!

যেসকল ক্রেতা ইতিমধ্যে আপনার পণ্য বা সেবা নিয়েছে তারা আপনার সম্পর্কে ভালো জানে, আপনাকে বিশ্বাস করে তাদের কাছে পুনরায় যেকোনো পণ্য বা সেবা কোনো খরচ করা ছাড়াই বিক্রি করা সম্ভব।

বড় বড় প্রতিষ্ঠানগুলো প্রত্যেক ক্রেতার তথ্য গুছিয়ে রেখে তাদের কাছে বার বার পণ্য বা সেবার মার্কেটিং করে। 

যদি ব্যবসা বড় করতে চান তাহলে একজন নতুন ক্রেতার চেয়ে পুরাতন ক্রেতাকে ৭ গুণ গুরুত্ব দিতে হবে। বড় প্রতিষ্ঠান গুলো সব সময় এই কাজটাই করে থাকে।

WhatsGrow ব্যবহার করে আপনিও আজ থেকে রেগুলার ক্রেতাদের সাথে কোনো টাকা খরচ না করেই সম্পর্ক উন্নয়ন করা শুরু করুন।

আজ থেকেই যেই ক্লাইন্ট-ই যোগাযোগ করবে বা পণ্য ক্রয় করবে তাদের হোয়াটসঅ্যাপ নাম্বার সংগ্রহ করা শুরু করুন। যখনই আপনার নতুন পণ্য আসবে, তখনই ক্লাইন্ট দেরকে WhatsGrow দিয়ে ছবি বা ভিডিও সহ মেসেজ পাঠিয়ে দিন ফ্রি-তে। আশা করি নিয়মিত ভালো একটা অর্ডার পেয়ে যাবেন।

একটি উদাহরণ দেই আপনি আপনার ব্যবসার সাথে মিলিয়ে নিবেন-

ধরলাম আপনি একজন কসমেটিকস পণ্যের ব্যবসায়ী। কসমেটিকস পণ্য মানুষের সবসময়ই লাগে। তাই ক্রেতাদের হোয়াটসঅ্যাপ নাম্বার রেখে দিন এবং যখনই নতুন কোনো পণ্য ইম্পোর্ট করবেন বা বিক্রির জন্য আনবেন WhatsGrow দিয়ে পণ্যটির ছবি বা ভিডিও সহ মূল্য, ব্যবহারবিধি, উপকারীতা ইত্যাদি পাঠিয়ে দিন বিনা খরচে! ছবি বা ভিডিও সহ যেকোনো পণ্যের প্রমোশন করলে মানুষের রেসপন্স পাওয়া যায় বেশি। ক্রিম, লৌশন, শ্যাম্পু, সাবান সহ যেসকল পণ্য নিয়মিত লাগে সেসকল পণ্যের ছবি ও ভিডিও সহ বিস্তারিত প্রমোশন আপনার রেগুলার ক্রেতাদের মাসে একবার পাঠিয়ে দিন। আপনার পণ্যের মান ও সার্ভিস ভালো হলে অনেক অর্ডার এখান থেকেই পেয়ে যাবেন কোনো মার্কেটিং খরচ ছাড়াই!

আপনি যদি ড্রেস, অলংকার, ফার্নিচার সহ যেকোনো ফ্যাশন আইটেম ও নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্যের ব্যবসায়ী হোন একই ভাবে আপনি আপনার বিক্রি বাড়াতে পারেন কয়েকগুণ।

আপনি শিক্ষক হলে আপনার শিক্ষার্থীদের ক্লাস আপডেট, পরীক্ষার নম্বর, নোটিশ, বেতনের নোটিশ, আসাইনমেন্ট, ভিডিও লেকচার ইত্যাদি তথ্য টাকা খরচ করে এবং সময় নষ্ট করে একটি একটি করে হাতে না পাঠিয়ে বিমামূল্যে WhatsGrow দিয়ে পাঠাতে পারবেন এক ক্লিকেই।

তাই বলা যায় আপনি শিক্ষক ও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, ডাক্তার ও চিকিৎসা প্রতিষ্ঠান, কসমেটিকস ব্যবসায়ী, লেখক ও প্রকাশনী, গ্রোসারী ব্যবসায়ী, ইলেক্ট্রনিক্স ব্যবসায়ী, ইকমার্স ব্যবসায়ী, হোম মেইড ফুড ব্যবসায়ী, কুরিয়ার বা ডেলিভারি সার্ভিস প্রতিষ্ঠান, অলংকার ব্যবসায়ী, আইটি প্রতিষ্ঠান, ফান্ড কালেকশন, ম্যারিজ মিডিয়া, ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট, গার্মেন্টস ব্যবসায়ী, মেডিসিন ব্যবসায়ী, ফ্যাশন আইটেম ব্যবসায়ী, রেস্টুরেন্ট ব্যবসায়ী, যেকোনো সার্ভিস প্রোভাইডার, আইনজীবী, কনস্ট্রাকশন বা রিয়েল স্টেট ব্যবসায়ী, ট্রাভেল এজেন্সি, বিদেশে শিক্ষা ইত্যাদি সহ যেই ব্যবসার সাথেই জড়িত থাকেন না কেনো অবশ্যই আজ থেকেই সেল বাড়ানোর কৌশল নেয়া উচিত। নিয়মিত ক্রেতাদের গুরুত্ব দেয়া উচিত। WhatGrow দিয়ে আপনি খরচ না করেই সেল বাড়াতে পারবেন।

সেল বাড়ানো মানে আজই লক্ষ লক্ষ মানুষকে মেসেজ দিয়ে কোটি কোটি টাকা আয় করে ফেলা নয়।

এটা সম্ভব নয়, সম্ভব হলে যে কেউ এক রাতে কোটিপতি হয়ে যেত। অচেনা ১ লক্ষ মানুষকে মেসেজ না দিয়ে চেনা ১ হাজার মানুষকে মেসেজ পাঠান, সেল বাড়বে। আজই কৌশলী হোন অন্যথায় পিছিয়ে পড়বেন।

ফেসবুক অ্যাড, গুগল অ্যাড সহ আমাদের যেকোনো মার্কেটিং সার্ভিস নিন এবং নিজের ব্যবসা এগিয়ে নিতে আমাদের ফেসবুক এডভান্স মার্কেটিং কোর্স করুন।

 

হোয়াটসঅ্যাপ মার্কেটিং কেনো করবেন?

মানুষ বিজ্ঞাপন ভালোভাবে না দেখলেও মেসেজ ইনবক্স ভালোভাবে ঠিকই দেখে। তাই বর্তমানে অনেক প্রতিষ্ঠান মেসেজ মার্কেটিং-এ ঝুঁকছে। আপনিও প্রায়ই মেসেজে বিভিন্ন পণ্যের বিজ্ঞাপন পান।

মেসেজ পাঠানোর জন্য যে কয়টা উপায় আছে তার মধ্যে সবচেয়ে সেরা মাধ্যম হচ্ছে হোয়াটসঅ্যাপ মেসেজ। কেনো সেরা তার কয়েকটা কারণ বলি-
 
মোবাইল মেসেজ পাঠাতে টাকা লাগে, হোয়াটসঅ্যাপ মেসেজ পাঠাতে টাকা লাগে না। মোবাইল মেসেজে ক্যারেক্টার লিমিটেশন আছে, অর্থাৎ যত ইচ্ছা লেখা মেসেজ করতে পারবেন না কিন্তু হোয়াটসঅ্যাপ মেসেজে যত ইচ্ছা লেখা পাঠাতে পারবেন।
 
যেকোনো পণ্যের বিজ্ঞাপনে পণ্যের ছবি বা ভিডিও যুক্ত করে দিলে পণ্যটির ব্যাপারে গ্রাহকের আগ্রহ বেশি কাজ করে। মোবাইল মেসেজে শুধু টেক্সট পাঠানো যায়, কিন্তু হোয়াটসঅ্যাপ মেসেজে আপনি টেক্সট, ছবি, ভিডিও, ফাইল সব পাঠাতে পারবেন।
 
আর ফেসবুকের সাথে তুলনা করলে ফেসবুকে ফেইক একাউন্ট-এ ভরপুর কিন্তু হোয়াটসঅ্যাপ একাউন্ট তারাই খুলে যাদের প্রয়োজন। হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহারকারীরা উল্লেখযোগ্য সময় একটিভ থাকে। ইউজ হয়না এমন একাউন্ট এর সংখ্যা ফেসবুকে অনেক হলেও হোয়াটঅ্যাপ-এ এই সংখ্যাটা খুবই কম বা নাই বললেও চলে।
 
বাংলাদেশে ফেসবুক ব্যবহার করে প্রায় ৪ কোটি ৩০ লক্ষ মানুষ আর হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহার করে প্রায় ৪ কোটি ১০ লক্ষ মানুষ। ফেসবুকে অনেকেই ফেইক একাউন্ট ব্যবহার করে, একজন একাধিক একাউন্ট ব্যবহার করে এবং অনেক অপ্রয়োজনীয় একাউন্ট আছে ফেসবুকে কিন্তু হোয়াটসঅ্যাপ তারাই ব্যবহার করে যাদের হোয়াটঅ্যাপ প্রয়োজন। শিক্ষিত, ব্যবসায়ী, কর্পোরেট, উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা এবং প্রতিষ্ঠানের মালিকেরা অবশ্যই হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহার করে তাই হোয়াটসঅ্যাপ মার্কেটিং করে ভালো ফলাফল পাওয়ার সম্ভাবনা অন্য মাধ্যমের তুলনায় যথেষ্ট বেশি।
 
ফেসবুক গুগল সহ সোশ্যাল মিডিয়াগুলোতে এতো এতো বিজ্ঞাপন দেখে মানুষ ত্যক্ত বিরক্ত। হোয়াটসঅ্যাপ-এ বিজ্ঞাপনের ঝামেলা বা ভিড় নাই বলে ব্যবহারকারীরা যেকোনো মেসেজ মনোযোগ সহকারে দেখে।
error: Content is protected !!

We love writing great content and sharing industry insights. To get a copy of our research on latest trends , subscribe to our newsletter

Subscribe to our newsletter

Sign up to receive updates, promotions, and sneak peaks of upcoming products. Plus 20% off your next order.

Promotion nulla vitae elit libero a pharetra augue